মোদির বাংলাদেশে আগমন রুখতে কুষ্টিয়ায় বিক্ষোভ সমাবেশ

ভারতের রাজধানী দিল্লিসহ বিভিন্ন স্থানে মুসলমানদের ওপর চালানো সহিংসতা, মসজিদে অগ্নিসংযোগ, মুসলমানদের বাড়িঘরে হামলার প্রতিবাদে এবং দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশে আগমন রুখতে কুষ্টিয়ায় ওলামা পরিষদের বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মঙ্গলবার বিকেলে কুষ্টিয়া শহরের বড় বাজার মসজিদ চত্ত্বর থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়। মিছিলটি প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে শাপলা চত্ত্বরে গিয়ে শেষ হয়। সেখানে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এতে আলেম-ওলামাসহ সর্বস্তরের হাজার হাজার মানুষ অংশগ্রহণ করে।

বৃহত্তর কুষ্টিয়া ওলামা পরিষদের সভাপতি মুফতি আব্দুল হামিদের সভাপতিত্বে বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন ওলামা পরিষদ নেতা মাওলানা আব্দুল খালেক, মাওলানা আব্দুল লতিফ, মাওলানা আব্দুল মতিন, মাওলানা মমিনুল ইসলাম, মাওলানা আব্দুল হাকিম প্রমুখ। সমাবেশে বক্তারা বলেন, ভারতের দিল্লিতে সম্পূর্ণ অন্যায়ভাবে মুসলমানদের ওপর হামলা করা হচ্ছে, মসজিদে আগুন দেয়া হচ্ছে, বাড়িঘর পুড়িয়ে দেয়া হচ্ছে, মুসলমানদের হত্যা করা হচ্ছে। এই নির্যাতন বিশ্বের কোনো মুসলমান সহ্য করবে না।

বক্তারা বলেন, ভারতের উগ্র হিন্দুত্ববাদী গোষ্ঠী সে দেশের সাম্প্রদায়িক সরকারের পৃষ্ঠপোষকতায় মুসলমানদের ওপর জুলুম নির্যাতনের নীল নকশা তৈরি করেছে। বক্তারা আরো বলেন, ভারতের মুসলমানদের অবস্থা এখন খুবই নাজুক। বিভিন্ন এলাকার মসজিদের মিনারে উঠে মাইক ভেঙে ফেলা হচ্ছে, হনুমানের ছবি বসিয়ে দেয়া হচ্ছে। চোখে অ্যাসিড দিয়ে মুসলমানদের পুড়িয়ে মারা হচ্ছে। বক্তারা বলেন, মোদি মানবতা, ইসলাম ও বাংলাদেশের দুশমন। সারা দেশের মানুষ মোদিকে বাংলাদেশে আসতে দিতে চায় না।

নির্যাতনকারী মোদিকে বাংলাদেশের মাটিতে পা রাখতে দেয়া হবে না। যে কোনো মূল্যে মোদিকে প্রতিহত করা হবে। জনগণ দলমত নির্বিশেষে মোদির আগমন প্রতিহত করবে।