প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে চীনের বাইরে প্রথম মৃত্যু ফিলিপাইনে

চীন থেকে ছড়িয়ে পড়া মহামারী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ফিলিপাইনে প্রথম একজনের মৃত্যু হয়েছে। প্রাণঘাতী ভাইরাসে ফিলিপাইনে প্রথম কোনো রোগীর মৃত্যুর ঘটনা এটি। খবর আলজাজিরার ও বিবিসির।

দেশটির স্বাস্থ্য বিভাগ জানায়, ম্যানিলার স্যান লাজারো হাসপাতালে সপ্তাহখানেক চিকিৎসাধীন থাকার পর শনিবার ৪৪ বছর বয়সী চীনা ওই রোগী মারা যান।

মারাত্মক পর্যায়ের নিউমোনিয়া নিয়ে গত ২৫ জানুয়ারি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন তিনি। তবে শেষ কদিনে তার অবস্থা স্থিতিশীল ছিল– এমনকি কিছু ক্ষেত্রে উন্নতিও ঘটেছিল। কিন্তু শেষ ২৪ ঘণ্টায় ওই রোগীর স্বাস্থ্যের এমন অবনতি হয় যে, তাকে আর বাঁচানো যায়নি।
আরও পড়ুন: কেন অন্য প্রাণী থেকে মানুষের দেহে নতুন রোগ ছড়াচ্ছে?

মারা যাওয়া এই ব্যক্তি উহানেরই বাসিন্দা। ম্যানিলায় চীনের দূতাবাসের সঙ্গে যোগাযোগ করে তার শেষকৃত্য দ্রুতই সম্পন্ন করা হবে বলে জানায় স্বাস্থ্য বিভাগ।

রোববার পর্যন্ত করোনাভাইরাসে চীনে ৩০৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ পর্যন্ত ২৬ দেশে এই ভাইরাসে সাড়ে ১৪ হাজার মানুষ আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

এ ভাইরাস ঠেকাতে চীন ভ্রমণে কড়াকড়ি আরোপ করেছে যুক্তরাষ্ট্র, অস্ট্রেলিয়া ও জাপান। ফিলিপাইনসহ অনেক দেশই এই ভাইরাসের প্রকোপ ঠেকাতে চীন থেকে আগতদের অন-অ্যারাইভাল ভিসা বন্ধ করে দিয়েছে। অনেক দেশের এয়ারলাইনস চীনে ফ্লাইট বন্ধ করে দিয়েছে।

দেশদর্পণ/এসজে