বিএনপির হরতালে যান চলাচল স্বাভাবিক

ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে অনিয়মের অভিযোগ তুলে নির্বাচনের ফল প্রত্যাখ্যান করে ঢাকায় আজ রোববার সকাল-সন্ধ্যা হরতাল ডেকেছে বিএনপি। দলটি রাজধানীতে সকাল-সন্ধ্যা হরতাল ডাকলেও দেখা যায়নি তাদের পিকেটিং করতে। রাজধানীজুড়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বাড়তি নিরাপত্তা, সতর্কতা ও নজরদারিতে চলছে যানবাহন।

সকালে ঢাকার বিজয় সরণি, পান্থপথ, গুলশান, মালিবাগ, খিলগাঁও, কারওয়ানবাজারসহ বিভিন্ন এলাকার রাস্তায় বাস, ট্রাক, রিকশা, প্রাইভেট কারসহ সব ধরনের যানবাহন চলাচল করতে দেখা গেছে। ছেড়ে যেতে দেখা গেছে দূরপাল্লার পরিবহনও। রাজধানীর প্রধান সড়ক, গলিপথ সব স্থানেই চলছে যানবাহন। তবে অন্য দিনের তুলনায় সকালে রাস্তা কিছুটা ফাঁকা ছিল। যানজট খুব বেশি ছিল না।

রোববার (২ ফেব্রুয়ারি) সকালে হরতাল শুরুর পর রাজধানীর বেশ কয়েকটি এলাকা থেকে ঘুরে দেখা যায়, চলছে সব ধরনের যানবাহন। হরতালকে কেন্দ্র করে রাজধানীর বিভিন্ন পয়েন্টে সকাল থেকে মোতায়েন রয়েছে বাড়তি পুলিশ। হরতাল সমর্থনে মিছিল কিংবা সংঘর্ষের খবর পাওয়া যায়নি। নাশকতা এড়াতে পুলিশের পাশাপাশি র‌্যাবের সব ব্যাটালিয়নও সতর্ক রয়েছে।

হরতালের সমর্থনে বিএনপির নেতাকর্মীরা রাজধানীসহ যেসব সম্ভাব্য স্থানে বিক্ষোভ করতে পারে সেসব স্থানে সকাল থেকেই নেয়া হয়েছে বাড়তি নিরাপত্তা। ঢাকা মহানগর পুলিশ সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
আরও পড়ুন: ভারত থেকে ভেসে আসছে শত শত মরা গরু

রাজধানীর কল্যাণপুর, গাবতলী, মিরপুর, মতিঝিল, মালিবাগ, রামপুরা, বাড্ডা, কাকরাইল, পল্টন ঘুরে দেখা যায়, স্বাভাবিকভাবেই চলছে যানবাহন। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বাড়ছে যানবাহন, বাড়ছে মানুষও। দোকানপাটও খুলতে শুরু করছে। হরতালকে কেন্দ্র করে ব্যাংক পাড়ার রাস্তায় মোতায়েন করা হয়েছে বাড়তি পুলিশ। এছাড়া পুলিশের টহল টিমের কয়েকটি গাড়িও ঘুরতে দেখা যায়।

ডিএমপির মতিঝিল বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার মো. জামিল হাসান জানান, সব কিছু স্বাভাবিক। স্বাভাবিকভাবেই চলছে সব যানবাহন। পুরো মতিঝিল এলাকায় হরতালের কোনো প্রভাব নেই। তবে পুলিশ সতর্ক রয়েছে। অপ্রীতিকর কিছু যাতে না ঘটে, জ্বালাপোড়াও না হয় সেজন্য সতর্ক রয়েছে প্রত্যেক থানা পুলিশ।

শাহবাগ থানার ওসি আবুল হাসান জানান, পুলিশ সতর্ক রয়েছে। এখন পর্যন্ত বিএনপি নেতাকর্মীদের মাঠে দেখা যায়নি। সব কিছু স্বাভাবিক রয়েছে। গাড়ি সবই চলছে।

ট্রাফিক উত্তর বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) সাইফুল হক জানান, ট্রাফিক উত্তরের সব সড়ক, গলিতে যান চলাচল স্বাভাবিক। কোনো অপ্রীতিকর কিছু ঘটেনি। কেউ যানবাহন চলাচলে বাধাও দেয়নি।

উল্লেখ্য, ঢাকা সিটি করপোরেশন নির্বাচন প্রত্যাখ্যান করে শনিবার (১ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে সকাল-সন্ধ্যা হরতাল কর্মসূচি ঘোষণা করেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। ঢাকাবাসীকে শান্তিপূর্ণভাবে হরতাল পালনের আহ্বান জানান তিনি।

দেশদর্পণ/এসজে