চৌগাছায় ১৯০ হেক্টর জমিতে চাষ হচ্ছে গম

বেশ কয়েক বছর ধরে চৌগাছা উপজেলায় গম চাষ করে বিপাকে পড়েছিল এই উপজেলার হাজারো কৃষক। কয়েক বছর ধরে বøাস্ট রোগে আক্রান্ত হয়ে উপজেলার কয়েকশত বিঘা জমির গম নষ্ঠ হয়ে যাওয়ার ফলে সাধারণ কৃষকরা গম চাষে হতাশ হয়ে পড়ে। ফলে এই উপজেলায় গম চাষ শূণ্যের কোঠায় চলে যায়। চৌগাছা উপজেলা কৃষি অফিসের একান্ত চেষ্ঠায় বর্তমানে এই উপজেলায় ১৯০ হেক্টর জমিতে গম চাষ করা হয়েছে। যাহা গত বছর প্রায় ১১০ হেক্টরের বেশি জমিতে গম চাষ করা হয়েছে, আবহাওয়া ভালো থাকলে এই বছর অত্র উপজেলায় গম চাষে বাম্পার ফলন আশা করছে উপজেলার হাজারো কৃষক।

উপজেলার ১১টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভার কম-বেশি প্রায় সকল মাঠেই গম চাষ করা হতো কিন্তু হঠাৎ বøাস্ট ভাইরাসে আক্রান্ত হবার ফলে দিন দিন গম চাষে আগ্রাহ হারায় গম চাষীরা। উপজেলা কৃষি অফিসের হিসাব অনুসারে চলতি বছর এই উপজেলায় বিআর ২৬, ২৭, ২৮, ৩০ ও ৩৩ জাতের গম সব থেকে বেশি চাষ করা হয়েছে।
আরও পড়ুন: সীমান্তে গরু আনতে গিয়ে নিহত হলে দায় নেবে না সরকার: খাদ্যমন্ত্রী

তবে গম চাষের উপযুক্ত সময় হচ্ছে ডিসেম্বরের ১৫-২০ তারিখের মধ্যে বিজ বপন করলে গম বেশি ভালো হয়।এছাড়া উপজেলার প্রতিটি গ্রামে কম-বেশি গম চাষ করা হলেও সব থেকে বেশি সুখপুকরিয়া ইউনিয়নে ৮৫ হেক্টর জমিতে,স্বরুপদাহ ইউনিয়নে ৪২ হেক্টর , পাশাপোল ইউনিয়নে ২০, এছাড়া পৌর এলাকায় ১৫ হেক্টর জমিতে গম চাষ করা হয়েছে। আবহাওয়া ভালো থাকলে গম চাষে এই উপজেলায় বাম্পার ফলে হতে পারে ।

দেশদর্পণ/এমআই/এসজে