প্রেমিকা চেয়ে বিজ্ঞাপন, চাঁদে ঘুরতে নিয়ে যাওয়ার অঙ্গীকার

প্রেমিকা চেয়ে অনলাইনে বিজ্ঞাপন দিয়েছেন জাপানের এক ধনকুবের, যাকে নিয়ে চাঁদে ঘুরতে যেতে চান তিনি। অতি রোমান্টিক ওই ধনকুবেরের নাম ইওসাকু মায়েজাওয়া। ফরাসি বার্তা সংস্থা এএফপির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, বিজ্ঞাপনে সাড়া পাওয়া গেলে সেই প্রেমিকা স্পেসএক্সের রকেটে চড়ে তার সঙ্গে চাঁদে ঘুরতে যাওয়ার সুযোগ পাবেন।

এর কিছুদিন আগে জাপানের এক অভিনেত্রীর সঙ্গে ব্রেক-আপের ঘোষণা দেন ধনকুবের ইওসাকু মায়েজাওয়া। নতুন প্রেমিকা চেয়ে অনলাইনে দেয়া বিজ্ঞাপনে এই ধনকুবের বলেন, জীবনকে পুরোপুরি উপভোগ করতে চান এমন ২০ বছর বয়সী কিংবা তার ওপরের সিঙ্গেল নারীকে প্রেমিকা বানাতে চান তিনি। যদিও দুই নারীর সঙ্গে তার তিন সন্তান রয়েছে। মাঝ বয়সে একাকিত্বে ভোগার কারণে প্রেমিকা চেয়ে বিজ্ঞাপন দিয়েছেন বলে জানান এই ধনকুবের।

বিজ্ঞাপনে তিনি বলেন, এখন আমার বয়স ৪৪ বছর। ধীরে ধীরে একাকিত্ব এবং শূন্যতা বোধ বাড়তে থাকায় আমার একটি জিনিস মনে হয়েছে যে, একজন নারীর সঙ্গে ভালোবাসা চালিয়ে যাওয়া উচিত। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে দেয়া এক বার্তায় জাপানি এই ধনকুবের বলেন, চাঁদে ভ্রমণের জন্য কেন আপনি প্রথম নারী হবেন না? বিজ্ঞাপনে আবেদনের চূড়ান্ত সময় বেঁধে দেয়া হয়েছে আগামী ১৭ জানুয়ারি পর্যন্ত। আগামী মার্চের শেষের দিকে তিনি যাচাই-বাছাই শেষে চূড়ান্তভাবে একজনকে প্রেমিকা মনোনীত করবেন। তবে তার আগে মনোনীত নারীর সঙ্গে ডেটে যাবেন তিনি।

জাপানের অনলাইন ফ্যাশন কোম্পানি জোজোর সাবেক প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ইওসাকু মায়েজাওয়া। পরবর্তী সময় জোজোকে ইয়াহুর কাছে বিক্রি করে দেন তিনি। ২০২৩ সালে চন্দ্র ভ্রমণে যাওয়ার কথা রয়েছে তার।

মার্কিন মহাকাশযান প্রস্তুতকারক এবং মহাকাশে যাতায়াত সেবাদানকারী ইলান মাস্কের কোম্পানি স্পেসএক্সের প্রথম প্রাইভেট যাত্রী হিসেবে চন্দ্র ভ্রমণে যাবেন জাপানি এই ধনকুবের। এ জন্য সফরসঙ্গী হিসেবে প্রায় অর্ধ ডজন শিল্পীকেও সঙ্গে নেয়ার পরিকল্পনা করেছেন মায়েজাওয়া। তবে চন্দ্র ভ্রমণে গেলেও চাঁদের বুকে নামার কোনো পরিকল্পনা নেই তাদের।