ন্যায্য অধিকারের দাবিতে মানববন্ধন

চৌগাছায় ভূমিদস্যু ও তার লাঠিয়াল বাহিনীর বিরুদ্ধে মানববন্ধন করেছেন উপজেলার পাশাপোল ইউনিয়নের তিন গ্রামের মানুষ। এ সময় তাদের মানববন্ধনের প্রতি বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ সংহতি প্রকাশ করে অংশ নেয়।

মানববন্ধন থেকে ভূমিদস্যু সলুয়া গ্রামের ইছাহক আলী, তার ছেলে আকমল হোসেন ও আশরাফ হোসেন (পুলিশ সদস্য) এর বাহিনীর হাত থেকে জমি উদ্ধার করার দাবি জানানো হয়। বুধবার বেলা ১১ টা থেকে ১২ টা পর্যন্ত বাজাররস্থ্য স্বাধীনতা ভাস্কার্য মোড়ে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

উপজেলার পাশাপোল ইউনিয়নের দুড়িয়ালী, মালিগাতী ও হাউলী গ্রামবাসির উদ্যোগে আয়োজিত মানববন্ধনে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের শতশত নারী পুরুষ অংশ গ্রহন করেন। তাদের পাশাপাশি হিন্দুদের অধিকার আদায় ও জমি উদ্ধারের সমর্থন জানিয়ে বিভিন্ন পেশাজীবী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ও সাধারণ মানুষও অংশ নেয়। মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক দেবাশিষ মিশ্র জয়, আওয়ামীলীগ নেতা ও পাশাপোল ইউপি চেয়ারম্যান অবাইদুল ইসলাম সবুজ, উপজেলা পুজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি অধ্যক্ষ বলাই চন্দ্র পাল, সহ-সভাপতি সন্তোষ কুমার রায় ও সুকুমার সরকার, সাংগঠনিক সম্পাদক বিজয় কৃষ্ণ অধিকারী, পাশাপোল ইউনিয়ন পুজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি মহাদেব চন্দ্র রায়, সাধারণ সম্পাদক ডাঃ মৃনাল কান্তি রায়, পৌর পুজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি অশোক কুমার হালদার, যুগ্ম সম্পাদক নিতাই সরকার, হাউলী গ্রামবাসি সবোল গাইন, শাহাজান আলী, শিবনাথ মন্ডল, সন্তোষ কুমার, মিন্টু সরদার, আশোক কুমার, সুমন সরদার, নুর ইসলাম, বিপুল মন্ডল, শুকেশ মন্ডল, সাধন হালদার, কিনারাম বিশ্বাস, শক্তিপদ বিশ্বাস, জয়দেব মন্ডল, গনেশ মন্ডল, দিনোবন্ধু মন্ডল, নূর হোসেন, ওহাব আলী, লোকমান হোসেন, সাইফুল ইসলাম, বিল্লাল বিশ্বাস, সৈয়দ আলী, মনোয়ার আলী, আলী হোসেন, খাইরুল ইসলাম, গৌতম মন্ডল, শ্রীচরণ মন্ডল প্রমুখ।
আরও পড়ুন: ‘কম্বলডা পাইয়ে শীতের কষ্ট দূর হলো’

মানববন্ধন থেকে অসহায় ভূমিহারা হিন্দু জনগোষ্ঠি ও স্থানীয়রা ভূমি উদ্ধারের জন্য প্রশাসনের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেন। মানববন্ধন শেষে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার মাধ্যমে জেলা প্রশাসক বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করা হয়। স্মারকলিপি গ্রহন করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাহিদুল ইসলাম।

মানববন্ধন শেষে এক প্রতিক্রিয়ায় সুবোল গাইন, মহাদেব চন্দ্র রায়, শাহাজান আলী বলেন, পাশাপোল ইউনিয়নের হাউলি, দুড়িয়ালী, মালিগাতী

গ্রামের ৬০ জন হিন্দু-মুসলিমের ১’শ বিঘা জমি সলুয়া গ্রামের ইছাহক আলী ও তার লাঠিয়াল বাহিনী দখল করে নিয়েছে। ওই সন্ত্রাসী চক্র বারবার হিন্দুদের ভারতে চলে যাবার জন্য আল্টিমেটাম দিয়েছে। ভারতে তারা চলে না গেলে জীবন নাশেরও হুমকি দেয়া হচ্ছে।

স্থানীয় চেয়ারম্যান অবাইদুল ইসলাম সবুজ বলেন, জমির মালিকরা খুব অসহায়। ভূমিদস্যু বলে চিহ্নিত ইছাহকের একটি ছেলে পুলিশে চাকুরী

করে। সেই দাপট দেখিয়ে এলাকার হিন্দুদের উপর অত্যাচার নির্যাতন চালানো হচ্ছে। বিষয়টি খুবই দুঃখজনক। ওই চক্র সব জমি জাল জালিয়াতির আশ্রয় নিয়ে দখল করে নিয়েছে। আমরা মানববন্ধন থেকে জমি দখলমুক্ত করার জন্য প্রশাসনের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

দেশদর্পণ/এমআই/এসজে