মহেশপুরে মেম্বার খুন, ভাইয়ের অবস্থা গুরুতর

মহেশপুরে স্বপন হোসেন (৩৭) নামে এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে খুন করেছে দুর্বৃত্তরা। তিনি উপজেলার মান্দারবাড়িয়া ইউনিয়নের মেম্বার।

স্থানীয় লোকজন ও হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার রাত নয়টার দিকে স্বপনের বাড়ির সামনে তাকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। স্বপনের বাড়িতে পানির লাইনের কাজ করছিল মিস্ত্রিরা। টাকা লেনদেন নিয়ে তাদের সঙ্গে মিস্ত্রি শাকিব, শামিম ও হামিদের কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে ধারালো দা দিয়ে স্বপনকে এলোপাতাড়ি কোপায় মিস্ত্রিরা। তাকে রক্ষা করতে এসে আক্রান্ত হন ভাই মিল্টন হোসেন (২৫)। স্থানীয়রা মিল্টনকে উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

তার শরীরের  মাথা ও বাম হাতে ধারালো অস্ত্রের আঘাত রয়েছে। তার অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাৎক্ষনিক তাকে ঢাকায় রেফার করা হয়েছে।

নিহত মেম্বার স্বপনের লাশ ঘটনাস্থলে রয়েছে বলে জানান স্বজনরা।

মহেশপুর থানার ওসি মোহাম্মদ মোর্শেদ হোসেন খান বলেন,  ‘আমি ঘটনাস্থলে আছি। খুনে জড়িতদের ধরতে একাধিক টিম কাজ করছে।’

নিহত স্বপন মান্দারবাড়িয়া গ্রামের মৃত আরশাদ আলীর ছেলে ও ইউনিয়নের সাত নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি মেম্বার এবং আওয়ামী লীগের সমর্থক। তিনি অবিবাহিত বলে স্থানীয়রা জানান।