মন্ত্রিসভায় রদবদলের সম্ভাবনা কম: ওবায়দুল কাদের

ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশনে নির্বাচনের আগে মন্ত্রিসভায় রদবদলের সম্ভাবনা কম বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, আমি আগেই বলেছি, মন্ত্রিসভায় রদবদল রুটিন বিষয়। আর এটা প্রধানমন্ত্রীর এখতিয়ার। তবে সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের আগে আমার মনে হয় না কোন প্রকার এক্সপানশন বা রিশাফল হবে। সিটি নির্বাচনের আগে এর সম্ভবনা একেবারেই কম।

বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সভাকক্ষে সমসাময়িক ইস্যুতে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন। মন্ত্রী বলেন, নতুন মন্ত্রীরা কাজে খারাপ করছেন বলে আমার মনে হয় না, নতুন মন্ত্রীদের কাজ করতেও সময় লাগে। আস্তে আস্তে তারা ভালো কাজ করবেন। আমিও নতুন মন্ত্রী হিসেবে একসময় কাজ করেছি, তখনকার কাজও দেখতে পারেন। তবে সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের আগে রদবদলের সম্ভাবনা কম।

তিনি বলেন, তারপরও আমি বলবো- প্রধানমন্ত্রী যে কোন সময় পরিবর্তন করতে পারেন। মন্ত্রীদের দায়িত্ব পুনর্বিন্যাস করতে পারেন। তবে তাড়াতাড়ি কিছু হবে এমন খবর আমার কাছে নেই।
আরও পড়ুন: ঘরে বসে ৫ মিনিটেই খোলা যাবে ব্যাংক অ্যাকাউন্ট

আগামী ৩০ জানুয়ারি ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনে সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

দলে পদ পেয়েছেন আওয়ামী লীগের এমন চারজন নেতা মন্ত্রিসভার সদস্য, তাদের ব্যাপারে কোনো সিদ্ধান্ত আসতে পারে কি না- জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, ‘সেটাও প্রধানমন্ত্রী বলতে পারবেন। তিনি যেটা ভালো মনে করবেন সেটাই হবে। দ্যাট ইজ ফাইনাল, আমরা সবাই তার সিদ্ধান্ত মেনে নেব। তিনি যদি আমাকে বলেন ছেড়ে দাও, আমি ছেড়ে দেব। এটা কোনো বিষয় নয়।’

কোনো কোনো মন্ত্রীর পারফরমেন্স নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে, আপনাদের কোনো অ্যানালাইসিস আছে কি না- এ বিষয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘আমাদের জবাবদিহিতা হচ্ছে সার্বিকভাবে জনগণের কাছে। কিন্তু ব্যক্তিগতভাবে আমরা প্রধানমন্ত্রীর কাছে দায়বদ্ধ। প্রত্যেক মন্ত্রণালয়ের পারফরমেন্স তার হাতে আছে, বিচার বিশ্লেষণ তিনিই করছেন। আপনারা জানেন ১০ জন সিনিয়র সচিব অলরেডি বিদায় নিয়েছেন, নতুন ১০ জন এসেছেন। এদের বিভিন্ন জায়গায় দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।’

দেশদর্পণ/এসজে