মালামাল ক্রয়ে দুর্নীতি: সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালের ষ্টোর কিপার ফজলু জেলে

১৬ কোটি ৬১ লাখ টাকার মালামাল ক্রয়ে দুর্নীতির ঘটনায় সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালের ষ্টোর কিপার ফজলুল হক আদালতে জামিন নিতে গেলে তাকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। তিনি দীর্ঘ দিন পলাতক থাকার পর মঙ্গলবার (২২ অক্টোবর) সাতক্ষীরার সিনিয়র স্পেশাল জজ আদালত জামিন নিতে যায়। আদালত তাকে জামিন নামঞ্জুর করে জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেয়

জানা যায়, সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালসহ জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের ১৬ কোটি টাকা ৬১ লাখ টাকার মালামাল ক্রয়ে দুর্নীতির ঘটনায় সাতক্ষীরা নাগরিক আন্দোলন মঞ্চ আন্দোলন শুরু করে নিয়ে বিভিন্ন পত্র পত্রিকায় প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়

এরপর ঘটনার দীর্ঘ তদন্ত শেষে দুদক প্রধান কার্যালয়ের উপসহকারী পরিচালক জালালউদ্দিন বাদী হয়ে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদোক) খুলনা জেলা সমন্বিত কার্যালয়ের পক্ষে তৎকালীন সিভিল সার্জন ডাঃ তৌহিদুর রহমান, স্টোর কিপার একেএম ফজলুল হক ও হিসাবরক্ষক আনোয়ার হোসেনসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন
আরো পড়ুন:
শার্শার বাগআঁচড়ায় ভাই ভাই বেকারীতে ভ্রাম্যমান আদালতের জরিমানা 
রাবির ১ম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষা সম্পন্ন
সাকিবদের দুষলেও আশাবাদী পাপন

মামলার আসামি ডাঃ তৌহিদুর রহমান, আনোয়ার হোসেন, জাহের উদ্দিন সরকার, হাজী আবদুস সাত্তার, আসাদুর রহমান ও আব্দুল কুদ্দুসসহ ৬ জন নিম্ন আদালত থেকে জেলে যাওয়ার পর বর্তমানে উ”চ আদালতের জামিনে রয়েছেন বাকী দুই জন আহসান হাবিব কাজী আবু বকর সিদ্দিক পলাতক রয়েছেন

দূর্নীতি দমন কমিশনের পিপি এড. আসাদুজ্জামান দিলু বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, মামালার আসামী স্টোর কিপার.কে.এম ফজলুল হকের বিরুদ্ধে দেশ ত্যাগের নিষেধাজ্ঞা থাকার পর আজ সিনিয়র স্পেশাল জজ আদালত জামিন নিতে গেলে আদালত তাকে জামিন না মঞ্জুর করে জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন

অক্টোবর ২১, ২০১৯ at ২১:০৩:৩০ (GMT+06)
দেশদর্পণ/আহা/আক/আআম/তআ