অটোরিকশা বন্ধের প্রতিবাদে শ্রমিকদের বিক্ষোভ, স্মরকলিপি প্রদান

লক্ষ্মীপুর পৌর শহরে অটোরিকশা বন্ধের প্রতিবাদে ঘন্টাব্যাপী বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করেছে শতাধিক মালিক ও শ্রমিকরা। এসময় তারা জেলা প্রশাসক বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করেন।

বৃহস্পতিবার (১৭ অক্টোবর) বিকেলে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে অটোরিকশা শ্রমিকরা জড়ো হয়ে এ কর্মসুচি পালন করেন।

জানা যায়, চলতি মাসে জেলা আইনশৃঙ্খলা মিটিং সিদ্ধান্ত হয় উত্তর তেমুহনী থেকে চক বাজার এলাকা ও চক বাজার থেকে শহরের দক্ষিণ তেমুহনী পর্যন্ত ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা চলাচল বন্ধের। এরপর থেকে ট্রাফিক বিভাগ মাঠে নেমে অটোরিকশা চলাচল বন্ধ করে দেয়। এতে কর্মহীন হয়ে শত-শত শ্রমিক’রা পরিবার-পরিজন নিয়ে বর্তমানে মানবেতর জীবন কাটাচ্ছে।

কয়েকজন শ্রমিক বলেন, একসময় লক্ষ্মীপুর শহর ও আশ-পাশে চুরি ও অপরাধ মূলক কর্মকান্ড থাকলেও বর্তমানে নেই। অটোরিকশা বন্ধ হয়ে গেলে কর্মহীন হলে অপরাধ প্রবেনতা বেড়ে যেতে পারে।

এসময় তারা অক্ষেপ প্রকাশ করে বলেন, প্রতিবছর পৌর কর্তৃপক্ষ লাইসেন্সের নামে ৮ হাজার টাকা হারে আদায় করেন। একজনে অনুমোদন দেয়, আরেকজননে বন্ধ করে। মাঝখানে অটোশ্রমিকদের স্বনাশ। এছাড়াও প্রতিদিন পৌর ঢোল দিতে হয় ১০ টাকা করে। সব নিয়ম মানার পরও আমাদের সাথে অন্যায় করা হচ্ছে।

ট্রাফিক পুলিশের হয়রানিতো আছেই। এরপর প্রশাসন হুট করে শহরে চলাচল বন্ধ করে দেওয়ায় কর্মহীন ও নিঃস্ব হয়ে পড়েছে শ্রমিকরা। তারা বাজার এলাকায় নির্দিষ্ট নিয়মে অটোরিকশা চালুর দাবী জানান।

এব্যাপারে জানতে চাইলে জেলা ট্রাফিক পুলিশ ইন্সপেক্টর মামুন আল-আমিন বলেন, জেলা আইনশৃঙ্খলা সভাতে সিদ্ধান্ত হয়েছে যানজট নিরাসন ও মহাসড়কে দুর্ঘটনা রোধে অটোরিকশা বাজারের প্রধান সড়ক ও মহাসড়কে বন্ধের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।