আবরার হত্যা মামলার আসামি শামিম বিল্লাহ গ্রেফতার

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের মেধাবী ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যা মামলার এজাহার নামীয় আসামী শামিম বিল্লাহকে আটক করেছে ডিবি পুলিশ। প্রযুক্তির সহায়তা নিয়ে ১১ অক্টোবর শুক্রবার সন্ধায় শ্যামনগর উপজেলার ভুরুলিয়া গ্রামের নানা বাড়ি থেকে তাকে আটক করা হয়।

সে পার্শবর্তী খানপুর ইছাকুড় গ্রামের আমিনুর রহমান বাবলুর রহমানের একমাত্র ছেলে। শামিম বিল্লাহ বুয়েট ছাত্রলীগের কার্যকরী কমিটির সদস্য ছিলেন বলে তার পরিবার সুত্রে জানা গেছে।

উল্লেখ্য, আবরার ফাহাদ হত্যাকান্ডের ঘটনায় তার বাবার দায়ের করা মামলার ১৪ নং আসামী ছিলেন শামিম বিল্লাহ। শামিমের চাচা লাভলুর রহমান এবং দাদা আতিয়ার রহমান জানান, শুক্রবার বেলা তিনটার দিকে সাদা পোশাকধারী একদল পুলিশ সদস্য ভুরুলিয়া গ্রাম থেকে শামিম বিল্লাহকে আটক করে নিয়ে যায়। তারা আরও জানায় শামিম বিল্লাহ ভুরুলিয়া গ্রামে বসবাসরত তার নানা অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক গঞ্জর আলীর বাড়িতে অবস্থান করছিল।

আরও পড়ুন :
কেশবপুরে থানা ও পৌর বিএনপির পৃথক সভা অনুষ্ঠিত
বাউবির পরীক্ষায় চার পরীক্ষার্থী বহিষ্কার

এদিকে শামিম বিল্লাহর দাদি মমতাজ বেগমসহ পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছে, শামিম বিল্লাহ দু’দিন আগে ঢাকা থেকে বাড়িতে ফিরে এসেছিল। আত্মসমর্পনের বিষয়ে পরিবারের সদস্যদের সাথে আলোচনা করার জন্য সে বাড়িতে আসে বলেও দাবি তাদের।

শামিম বিল্লাহকে তার দাদি মমতাজ বেগম আরও দাবি করেন, আবরার ফাহাদকে মারধরের সময় সিনিয়র ভাইদের ডাকে সাড়া দিয়ে সে অমিত সাহার কক্ষে যায়। সিনিয়র ভাইয়ের কথা উপক্ষা করতে না পারার কারণে মারধরের সময় সে ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিল বলে বাড়িতে ফিরে স্বজনদের জানিয়েছিলেন।

জানা গেছে, আবরার ফাহাদ হত্যা মামলার আসামী শামিম বিল্লাহ নেভাল আর্কিটেকচার এন্ড মেরিন ইঞ্জিনিয়ারিং নিয়ে লেখাপড়া করছিল। সে শেরে বাংলা হলের ২০৪ নং কক্ষের ছাত্র। ১৭ ব্যাচের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র শামিম ঢাকার মোহাম্মদপুরের সেন্ট জোসেফ উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে এইচএসসি ও শ্যামনগরের নকিপুর এইচসি পাইলট ম্যাধমিক বিদ্যালয় থেকে সে গোল্ডেন জিপিএ পাঁচ নিয়ে এসএসসি পাশ করে।

সেপ্টেম্বর ১১, ২০১৯ at ২২:১০:২৯ (GMT+06)
দেশদর্পণ/আহা/আক/এএএম/আজা