পর্যটক নারী-পুরুষদের একসাথে থাকার অনুমতি দিল সৌদি আরব

সৌদি আরব এবার অবিবাহিত নারী-পুরুষদের একসঙ্গে থাকার অনুমতি দিয়েছে । এই নিয়ম পর্যটক বাড়াতে শুধু বিদেশি নারী-পুরুষদের জন্য । পাশাপাশি, হোটেলে ওঠার নিয়ম সৌদি নারীদের জন্যেও শিথিল করা হয়েছে ।

এখন থেকে শুধু নিজের পরিচয়পত্র দেখিয়েই হোটেলের কক্ষ ভাড়া নিতে পারবেন তারা, পরিবারের কোনো পুরুষ সদস্যের অনুমতি নিতে হবে না।

(৫ অক্টোবর) শনিবার এক প্রতিবেদনে বলা হয়, কট্টর ইসলামিক দেশ হিসেবে পরিচিত সৌদি আরবে বিবাহ বহির্ভূত শারীরিক সম্পর্ক কঠোরভাবে নিষিদ্ধ।

তবে, সম্প্রতি পর্যটন বাড়ানোর লক্ষ্যে পশ্চিমা দেশের অনুকরণে বেশ কিছু পদক্ষেপ নিয়েছে তারা। এর অংশ হিসেবেই অবিবাহিত বিদেশিদের একসঙ্গে থাকার সুযোগ দেওয়া হচ্ছে।

তবে, বিদেশিদের জন্য এই নিয়ম প্রযোজ্য নয়। সৌদিসহ সব নারীই পরিচয়পত্র দেখিয়ে হোটেলে একা একা কক্ষ ভাড়া নিতে পারবে।

আরও পড়ুন :
পৌরসভার নোটিশ অমান্য করে মার্কেটের কাজ চলছে
ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে যুবকের মৃত্যু

এর আগে, গত সপ্তাহে ৪৯টি দেশের নাগরিকদের জন্য দরজা খুলে দিয়েছে মধ্যপ্রাচ্যের দেশটি। নতুন আদেশে বলা হয়েছে, পর্যটক নারীদের বোরকা পরার প্রয়োজন নেই, শুধু পোশাক-পরিচ্ছদে সংযত থাকলেই চলবে।

সৌদির ডি ফ্যাক্টো নেতা যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের ‘ভিশন ২০৩০’ নামের সংস্কার কর্মসূচির আওতায় এসব উদ্যোগ নিয়েছে দেশটির সরকার।

তবে দেশটিতে এখনো মদ্য পান নিষিদ্ধ। পাশাপাশি জনসম্মুখে শালীনতা ভঙ্গ করলেই গুনতে হবে জরিমানা।

ক্ষমতা হারাতে যাচ্ছেন ইমরান খান: 

পাকিস্তানে আবারও সেনা অভ্যুত্থানের আশঙ্কা তৈরি হয়েছে। দেশটির সেনা প্রধান ১১১ ব্রিগেডের ছুটি বাতিলের নির্দেশ দেওয়ায় বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান ক্ষমতা হারাতে চলেছেন বলে খবর উঠেছে।

ইমরান গদি হারাতে পারেন এ খবর বেশ জলদি চাউর হয়েছে ‘১১১ ব্রিগেডের’ ছুটি বাতিল ঘোষণার কারণেই। কেননা, এর আগে তিনবার ১১১ ব্রিগেড ব্যবহার করে নির্বাচিত সরকার ফেলে দিয়েছে পাকিস্তান আর্মি।

প্রতিবারই রাওয়াল পিন্ডিতে ১১১ ব্রিগেড মোতায়েন করা হয়েছিল। এবারও সেখানেই এই ব্রিগেড মোতায়েন করা হবে বলেও জানা গেছে।

এদিকে পাকিস্তানি গণমাধ্যম ডন ও জিয়ো নিউজ উর্দূর খবর থেকে জানা গেছে, পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে গদি থেকে সরাতে ইসলামাবাদে অবরোধের ডাক দিয়েছে দেশটির অন্যতম প্রভাবশালী রাজনৈতিক দল জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম। আগামী ২৭ অক্টোবর ‘আজাদী মার্চ’ নামে ওই অবরোধ কর্মসূচি পালিত হবে ।

ইসলামাবাদে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি জানিয়েছেন, সব বিরোধী দল এ বিষয়ে একমত যে বর্তমান সরকার একটি ভুয়া নির্বাচনের মাধ্যমে ক্ষমতায় এসেছে।

২০১৮ সালের ২৫ জুলাইয়ের নির্বাচনকে সবাই প্রত্যাখ্যান করে নতুন নির্বাচনের দাবিতে রাজনৈতিক দলগুলো একমত হয়েছে। এ ভুয়া সরকারকে দেশের জনগণ আর চায় না।

অক্টোবর ০৫, ২০১৯ at ২০:০৩:২৯ (GMT+06)
দেশদর্পণ/আহা/আকে/প্রবা/আজা