চৌগাছার পত্রিকা এজেন্ট সাঈদুলের মৃত্যুতে স্থানীয় সাংবাদিকবৃন্দর শোক

যশোরের চৌগাছার বিভিন্ন পত্রিকার একমাত্র এজেন্ট মাওলানা সাঈদুল ইসলাম (৭৬) শনিবার ভোর রাতে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে যশোর ইবনেসিনা হাসপাতালে ইন্তেকাল করেছেন (ইন্না লিল্লাহি …… রাজিউন)। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, ৩ ছেলে, ৬ মেয়েসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। তিনি ১৯৬৭ সাল থেকে চৌগাছার একমাত্র পত্রিকা এজেন্ট হিসেবে ব্যবসা করে আসছিলেন। তাঁরা মৃত্যুতে চৌগাছায় কর্মরত সাংবাদিকবৃন্দ এক শোক বিবৃতি দিয়েছেন।

সাংবাদিতকবৃন্দ শোক ও শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন। বিবৃতিদাতারা হলেন- দৈনিক ইনকিলাবের চৌগাছা সংবাদদাতা অধ্যাপক আবুল কাশেম, দৈনিক ইত্তেফাক ও প্রতিদিনের কথার চৌগাছা সংবাদদাতা অধ্যক্ষ আবু জাফর, দৈনিক আমাদের অর্থনীতির চৌগাছা প্রতিনিধি রহিদুল ইসলাম খান, দৈনিক পূর্বাঞ্চলের আশাদুল ইসলাম, দৈনিক ভোরের কাগজের চৌগাছা প্রতিনিধি জিয়াউর রহমান রিন্টু, দৈনিক আমাদের সময়ের চৌগাছা প্রতিনিধি আজিজুর রহমান, দৈনিক যায়যায় দিনের আসাদুজ্জামান মুক্ত, দৈনিক নয়াদিগন্তেরএমএ রহিম, দৈনিক আমাদের নতুন সময় ও দৈনিক স্পন্দনের বাবুল আক্তার, দৈনিকলোকসমাজের পুড়াপাড়া প্রতিনিধি আব্দুল কাদের, দৈনিক কল্যানের ছুটিপুর প্রতিনিধি মাস্টার আব্দুল কাদের, দৈনিক যশোরের চৌগাছা প্রতিনিধি ড.আব্দুস শুকুর, দৈনিক সময়ের আলোর প্রভাষক আজিজুর রহমান, দৈনিক ভোরের ডাকের শফিকুল ইসলাম, দৈনিক ভোরের দর্পনের শরিফুল ইসলাম, দৈনিক জনতা ও প্রজন্মের ভাবনার শ্যামল দত্ত, সরোয়ার হোসেন, এইচএম ফিরোজ, দৈনিক কল্যানের আব্দুল্লাহ আল মামুন, সমাজের কাগজের আব্দুল মালেক ও ফারুক হোসেন, প্রতিদিনের কথার চৌগাছা পৌর প্রতিনিধি সাজ্জাদ মল্লিকসহ বিভিন্ন পত্রিকায় চৌগাছায় কর্মরত সাংবাদিকবৃন্দ।
শনিবার বাদ আছর চৌগাছা পৌরসভার ইছাপুর দেওয়ানপাড়া জামে মসজিদের সামনে নামাজে জানাজা শেষে তাকে পারিবারিক করবস্থানে দাফন করা হবে বলে পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।