যবিপ্রবিতে ভর্তিচ্ছুদের জন্য বিশেষ বাণী

ইতিমধ্যে শুরু হয়েছে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা। ২১ নভেম্বর যবিপ্রবির ভর্তি পরীক্ষা শুরু হবে। এ ইউনিটের পরীক্ষা ২১ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হবে। তাই বিজ্ঞান বিভাগ থেকে ভর্তিচ্ছু নবীনদের পরামর্শ দিতে যুক্ত হয়েছেন যবিপ্রবির তড়িৎ প্রকৌশল বিভাগের ৩য় বর্ষের মেধাবী ছাত্র শরীফুল হক।

“স্বপ্ন দেখুন এবং অন্যকে দেখতে সহয়তা করুন, জীবন থেকে সব চলে গেলেও স্বপ্ন যাতে চলে না যায় কারন স্বপ্নই মানুষকে বাচিয়ে রাখে”.

টেকনিকে পড়ুন:

ভার্সিটি চান্স নিয়ে একদল লোকের ভুল ধারনা, যে শুধুমাত্র সারাদিন পড়াশুনা করলেই ভার্সিটিতে চান্স পাওয়া যায় এটা সম্পূর্ণ ভুল ধারনা। কম পড়ুন আর বেশি পড়ুন কিন্তু টেকনিক খাটিয়ে পড়ুন।
না হলে সবটুকু আপনার “পন্ডশ্রম” হবে। আপনি চান্স পেতে আগ্রহী যেকোনো বিশ্ববিদ্যালয়ে তাই না?

আমাদের প্রধান সমস্যা কি জানেন আমরা একেবারে বেশি খেতে চাই, এখানে খাওয়া বলতে প্রশ্ন পাওয়ার সাথে সাথে উওর পারি আর না পারি ভুল উওর দাগানো শুরু করি।(MCQ ক্ষেএে) ভাগ্যের উপর ছেড়ে দিই সব। ভাবি ভাগ্য থাকলে হবে তাই না?

হতাশ হওয়া যাবে না:

কিছু ধরনের ঘটনা দেখতে পাওয়া যায় ভর্তি পরীক্ষার ক্ষেত্রে যখন পরীক্ষা দিতে যাবেন তখন দেখবেন একদল একগাদা বই হাতে নিয়ে পড়াশুনা করছে। এতে আপনার নিজের মনে হবে তার প্রস্তুতি আপনার চেয়ে ভালো এটা মনে করবেন না, নিজেকে তার কাছে তুচ্ছ মনে করার কিছু নাই।

আরও পড়ুন:
প্রেমিকার বাড়ীতে প্রেমিককে আটকিয়ে রেখে নির্যাতনের পর মিথ্যা মামলায় ফাঁসানোর অভিযোগ
আনোয়ারা বেগমের হত্যা মামলায় ফাঁসি-২

পরীক্ষা শেষ করার পর শুনতে পারবেন, কেউ কেউ বলছে আমার চান্স নিশ্চিত।কিন্তু গবেষণায় দেখা যায় রেজাল্টের পর তাদের আর খুজে পাওয়া যায় না। পরীক্ষা আপনার কিন্তু বেশি মাথাব্যাথা থাকে পাশের বাসার আন্টির এই কারন গুলোকে পরিহার করুন। নাহলে “হতাশা” চলে আসবে। আর “হতাশা” আপনাকে এগিয়ে যেতে দিবে না।

চ্যালেঞ্জ নিন:

ভার্সিটির প্রত্যেকটা ইউনিটের মত ইঞ্জিনিয়ারিং ইউনিটে চান্স পাওয়াটা ও একটু বেশি চ্যালেঞ্জিং। চ্যালেঞ্জ দেখে ভয় পাবেন না, চ্যালেঞ্জ হাতে নিন।

টেকনিক আর বেসিকটা না বুঝে পড়লে আপনি না পড়ে ওই সময়ে একটু বিশ্রাম করলেই পারতেন। কারন ওইটা “পন্ডশ্রম”। জোর দিন Physics, Chemistry, Math এর বেসিক ও টেকনিক জিনিসের উপর। যেটা পড়ছেন কেন হচ্ছে, কিভাবে হচ্ছে, নিজেকে প্রশ্ন করেই পড়ুন। আর ইংরেজির ক্ষেএে অনুশীলন এর বিকল্প কিছুই হতে পারে না।

ভুল দাগাবেন না:

প্রশ্ন দাগানোর ক্ষেএে ভূল দাগাবেন না এটা আপনাদের কাছে অনুরোধ। আর চেষ্টা না করে কোন প্রশ্ন ভুল দাগিয়ে ভাগ্যের উপর ছেড়ে দিবেন না।

পাশের বাসার আন্টি কিংবা আপনার বন্ধুবান্ধব আপনাকে নিয়ে কে কি বলছে সে দিকে খেয়াল না দিয়ে নিজের লক্ষ্য অটুট রাখুন। আর আবার বলছি হতাশ হবেন না। হতাশ হলেই আপনি হেরে যাবেন।
” Don’t let Your Failure, Define Who you are”.

সেপ্টেম্বর ২৩, ২০১৯ at ১৭:৫২:৩০ (GMT+06)
দেশদর্পণ/আহা/আক/এসএফ/কেএ