দুই হাতের কব্জি কেটে দিলো চেয়ারম্যানের সাঙ্গপাঙ্গরা

ঘাট নিয়ে বিরোধের জেরে চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে রুবেল হোসেন (৩০) নামে এক যুবকের দুই হাতের কব্জি কেটে দিয়েছে প্রতিপক্ষ।

বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার নয়লাভাঙা এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

ঘটনার শিকার রুবেল হোসেন ওই গ্রামের খোদা বক্সের ছেলে। গুরুতর অবস্থায় তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতলে ভর্তি করা হয়েছে।

বর্তমানে তিনি হাসপতালের ৩১ নং ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন আছেন।

রুবেল হোসেন বলেন, উপজেলার উজিরপুর ইউনিয়নের পদ্মার ফেরিঘাট নিয়ে দীর্ঘদিন ধরেই চেয়ারম্যান ফয়েজ উদ্দিনের সঙ্গে তার বিরোধ ছিল।

আরও পড়ুন:
বায়োমিল দুধ খেয়ে যমজ শিশুর মৃত্যু
একদিনের অভিযানে চারটি ক্যাসিনো সিলগালা

এরই জেরে বৃহস্পতিবার চেয়ারম্যানের লোকজন তাকে চোখ বেঁধে তুলে নিয়ে যায়। পরে তার দু’হাতের কব্জি কেটে ফেলে রেখে যায়।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন একই ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য তরিকুল ইসলাম। তিনি বলেন, অনেকদিন আগে থেকেই ওই ঘাট নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। এ নিয়েই রুবেল হোসেনকে তুলে নিয়ে হাত কেটে নেয়া হয়েছে বলে শুনেছি।

এ বিষয়ে জানতে কয়েক দফা চেষ্টা করেও চেয়ারম্যান ফয়েজ উদ্দিনের মুঠোফোনে সংযোগ পাওয়া যায়নি।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গেছেন শিবগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আতিকুল ইসলাম। এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

সেপ্টেম্বর ১৯, ২০১৯ at ১৪:১৪:৩০ (GMT+06)
দেশদর্পণ/আহা/আক/জেএন২৪/এএএম