হারপিক খেয়ে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছে শারমিন

হারপিক খেয়ে যশোরের চৌগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছে শারমিন (৩০) নামের এক গৃহবধু। গুরুতর আহত সারমিন কালিগঞ্জ উপজেলার মান্দারবাড়িয়া গ্রামের স্বপনের স্ত্রী।

আজ শনিবার তার পরিবারের লোকজন সকাল ৯ টার দিকে তাকে চৌগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করে।

তার স্বজনদের সূত্রে জানা যায় সকালে শারমিন টয়লেট থেকে বেরিয়ে বসে পড়ে কাতরানোর শব্দ করে। ঐ সময় পরিবারের সবাই হারপিক খেয়েছে বুঝতে পেরে দ্রুত চৌগাছা হাসপাতালে ভর্তি করে।

আরও পড়ুন:
ডিসেম্বরেই উৎপাদনে আসছে পায়রা তাপ বিদ্যুৎকেন্দ্র
বন্দুকযুদ্ধে মাদক ব্যবসায়ী নিহত

হাসপাতালের জরুরী বিভাগ সূত্রে জানা, শারমিন নামের রোগীকে ভর্তি করা হয়েছে কিন্তু ওয়াশ করা হয়নি কারণ ওয়াশ করলে মারা যেতে পারে। হারপিক খাওয়া রোগী ওয়াশ করা হয়না।

এই রোগী ডাঃ নাহিদ সিরাজের তত্বাবধায়নে চিকিৎসারত। চিকিৎসা সূত্রে জানা যায়  কি পরিমান হারপিক খেয়েছে তার উপর নির্ভর করছে রোগীর সুস্থতা।

সেপ্টেম্বর  ১৪, ২০১৯ at ১৩:০৮:৩০ (GMT+06)
দেশদর্পণ/আহা/আক/মই/এএএম