কেউ আমার স্বামীকে দোষ দিও না!

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে চিরকুট লিখে এক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছেন। নিহতের নাম নীলা খাতুন (২৬)।

চিরকুটে ওই গৃহবধূ লিখে গেছেন, ‘আমার মৃত্যুর জন্য কেউ দায়ী নয়। আমি নিজের ইচ্ছায় গলায় দড়ি দিলাম। কেউ আমার স্বামীকে দোষ দিও না। মা তোমরা কেউ বাদী হইও না। এটা আমার অনুরোধ রইল। নীলা।’

রোববার রাতে উপজেলার চাপালী কুঠিপাড়ার ভাড়া বাড়ি থেকে চিরকুটসহ ওই গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করা হয়।

নিহত নীলা খাতুন উপজেলার চেউনিয়া গ্রামের শামিরুল ইসলামের স্ত্রী। তার স্বামী শহরের একটি হোটেলে কাজ করেন।তাদের নিলয়-নিরব নামের দেড় বছরের যমজ ছেলে এবং শামীমা নামের ৬ বছরের একটি মেয়ে সন্তান আছে।

আরও পড়ুন :
পাকিস্তানের বাণিজ্য সম্মেলনে বেলি ডান্স
সিআইএমএস অ্যাপস উদ্বোধন করলেন ডিএমপি কমিশনার

নীলার ভগ্নিপতি নয়ন হোসেন বলেন, রাতে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসি। এসে দেখি নীলা গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। আসার পর নীলার মেয়ে শামীমা আমাকে দুটি কাগজ ধরিয়ে দেয়।

শামীমা আমাকে জানায়, দুপুরের দিকে তার মা এই কাগজে কিছু একটা লিখেছে। নীলা আত্মহত্যা করার সময় পাশের ঘরেই তার স্বামী শুয়ে ছিলেন। তবে কী কারণে নীলা আত্মহত্যা করেছেন তা কেউ বলতে পারছে না।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে কালীগঞ্জ থানার ওসি মো. ইউনুছ আলী জানান, নীলার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঝিনাইদহ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।

সেপ্টেম্বর ৯, ২০১৯ at ১৪:১৫:৩০ (GMT+06)
দেশদর্পণ/আহা/আক/যু/এএএম